চাকরির জন্য কম্পিউটার শেখা কতটা জরুরী এবং কী কী বিষয় শিখবেন!

হাজারো বেকার চাকরি খুঁজছে আর লক্ষ প্রতিষ্ঠান পারফেক্ট কাউকে খুঁজছে যে সবচেয়ে ভালো সার্ভিসটা দিতে পারবে। এমন কাউকে বেকার দেখিনি যে সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে চলে এবং সময়ের সদ্ব্যবহার করে। অন্তত মিনিমাম লেভেলের হলেও একটি চাকরি আপনি পাবেনই।
যেহেতু আজকের লেখাটা কম্পিউটার নিয়ে তাই আমি শুধু কম্পিউটার শেখা কেন জরুরী এবং কী কী বিষয় শিখতে হবে সেটাই বলব।
বর্তমানে প্রায় প্রতিটি চাকরিতে কম্পিউটার জানা লাগে। কিছু কিছু পোস্টে কম্পিউটার জানা বাধ্যতামূলক না হলেও, জানা থাকলে প্রমোশনের ক্ষেত্রে এবং অফিসে ভালো পারফরমেন্সের ক্ষেত্রে দারুণ কাজ দেবে। কম্পিউটার জানা থাকলে আপনার হেল্প চাইতে সবাই আসবে। জানা না থাকলে আপনাকেই অন্যের কাছে হেল্প চাইতে হবে। এমনকি কম্পিউটার জানা ব্যক্তির মনোরঞ্জনের জন্য তাকে চা-পানিও খাওয়াতে হতে পারে। এটাই আমার অভিজ্ঞতা বলে। সবেচেয়ে বড় কথা হলো; কম্পিউটার জানা থাকলে চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে আপনার প্রতিদন্ধীও কমে যাবে। কারণ যারা কম্পিউটার জানে না তারা অনেকেই ইন্টারভিউ থেকে বাদ পড়ে যাবে।
এখন হয়ত বুঝতে পারছেন কম্পিউটার জানাটা কতটা জরুরী। কিন্তু কোথায় শিখবেন, কীভাবে শিখবেন এবং কী কী বিষয় শিখবেন। এ ব্যাপারে জটিলতা এখনো রয়েই গেলো। চিন্তার কিছু নেই, সব পরিষ্কার করে দিচ্ছি। প্রথমে বলব কী কী শিখবেন। কম্পিউটার এমন একটি যন্ত্র যা দিয়ে ছোট বড় অনেক কিছুই করা যায়। কেউ এটা দিয়ে শুধু গান শুনে আবার কেউ এটা দিয়ে বিভিন্ন গ্রহ-নক্ষত্রে পাঠানো নভোযান নিয়ন্ত্রণ করে। এখন আপনার যা প্রয়োজন, তা হলো;
1) অপারেটিং সিস্টেম: আপনার হাতের এন্ড্রয়েড ফোন যেভাবে ব্যবহার করেন, ঠিক তেমনি কম্পিউটারের প্রাথমিক ব্যবহার আপনাকে জানতে হবে। যেমন; কম্পিউটার ওপেন-বন্ধ করা, ফাইল-ফোল্ডার চেনা, বিভিন্ন ফাইল সংরক্ষণ করে রাখা, ডিলিট হয়ে যাওয়া ফাইল ফেরত নিয়ে আসা। বিভিন্ন সফটওয়্যার ইনস্টল করা, অপ্রয়োজনীয় সষফটওয়্যার আন-ইনস্টল করা। ফাইল জিপ আনজিপ করা, ফাইল কপি ও মুভ করা, রি-নেইম করা ইত্যাদি বিষয়াবলি। এরকম আরো অনেক বিষয়াবলি আছে যা কম্পিউটারের একেবারেই প্রাথমিক বিষয় এবং এগুলোই অপারেটিং সিস্টেম। সাধারণভাবে যারা একটু সচেতন তারা নিজেরাই টিপাটিপি করে এগুলো শিখে ফেলে। তারপরেও আপনার জানা না থাকলে আমার ‘এসো কম্পিউটার শিখি নামে ইউটিউবে একটা প্লে-লিস্ট আছে সেখান থেকে সবকটি বিষয় পূর্ণাঙ্গভাবে শিখে নিতে পারেন। এখানে ক্লিক করুন: https://www.youtube.com/playlist?list=PLa1dVaFIG9UdR_FemH34qqpMZRKnafguB
2। অফিস অ্যাপ্লিকেশন্স:
দ্বিতীয় নাম্বারে আপনাকে যে বিষয়টা জানতেই হবে তা হলো মাইক্রোসপ্ট অফিস অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রাম। বিশেষ করে এস.এস. ওয়ার্ড, এক্সেল ও পাওয়ার পয়েন্ট। এ তিনটি অ্যাপ্লিকেশনে আপনাকে হতে হবে সুপার বস। সরকারি বেসরকারি যে কোন অফিসে এগুলো লাগবেই। বিশেষ করে ওয়ার্ড ও এক্সেলের বিকল্প নেই। এম. এস. ওয়ার্ড যে কোন ডকুমেন্ট তৈরি করার জন্য বিশেষ করে টাইপিং করার জন্য, এক্সেল বিভিন্ন হিসাব করার কাজে আর পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টশন তৈরির কাজে ব্যবহার হয়।
এখন সমস্যা হলো কোথাই শিখবেন এই কাজগুলো। অফিস অ্যাপ্লিকেশনের জন্য আমি এখনো পর্যন্ত কোন টিউটরিয়াল তৈরি করিনি। তবে ইউটিউবে সার্চ দিলে অনেক ভালো মানের টিউটরিয়াল পাবেন, সেখান থেকেই শিখতে পারেন। চকবাজার সাদিয়া’স কিচেনের পাশে বাংলাদেশ যুব উন্নয়ন একাডেমিতে (বিডা) এই কাজগুলো ভালোভাবে শেখায়। ওদের শিটগুলো অত্যন্ত চমৎকারভাবে তৈরি করা হয়েছে। শিটগুলো তৈরি করেছেন বন্ধু মোহাম্মদ Delowar Bin Y. Meah। এটা আমার একটা ব্যক্তিগত সাজেশন্স তবে আপনি পৃথিবীর যেকোন জায়গা থেকে শিখতে পারেন। তবে সবচেয়ে ভালো হয় ইউটিউব ও গুগল করে শিখলে। আমি ব্যক্তিগতভাবেও কোন কিছুতে আটকে গেলে ইউটিউব ও গুগল করেই শিখি।
3) ইন্টারনেট: আপনি যথই মাছ-মাংশ রান্না করেন, মশলা যদি না দেন, তাহলে আপনার মাছ-মাংশ মুখে দেওয়ার অবস্থা থাকবে না। ঠিক ইন্টারনেটও এরকম একটি বিষয়। টুকটাক গুগল সার্চ ও মেইল আদান-প্রদানেকই ইন্টারনেট বলেনা। এর আছে সদূরপ্রসারী ব্যবহার যা আপনাকে জানতেই হবে। শুধু ইন্টারনেট ভালো জানার জন্যেই অফিসে পারফরমেন্সের ক্ষেত্রে নতুনমাত্রা যোগ হবে। ইন্টারনেট নিয়ে আমার ধারাবাহিক টিউটরিয়াল আছে যা দেখে আপনি হতে পারেন অন্য এক ইন্টারনেট ইউজার, দেখে নিন এখান থেকে। https://www.youtube.com/playlist?list=PLa1dVaFIG9UdcNwkGRc9EBAMMbFgKy4WY
কোনো ট্রেনিং সেন্টারে এর চেয়ে ভালো কখনোই শিখতে পারবেন না। এটা আমি হলফ করে বলতে পারি।
উপরে তিনটি বিষয় যথাযথ আয়ত্ব করতে পারলেই আপনাকে আর ঠেকাই কে! আপনি নিজেই বস! দু’টি মাস নিজেকে সময় দিন তাহলেই হবে।
যদি আরো ভালো পারফরমেন্স করতে চান তাহলে ফটোশপ ও ইলাস্ট্রেটর অ্যাপ্লিকেশন দুটির ব্যসিক ব্যবহার শিখে নিন। এর জন্য আমার একটি সিরিজ টিউটরিয়াল আছে এখান থেকে দেখে নিন। https://www.youtube.com/playlist?list=PLa1dVaFIG9UcF0JdRKF4iOq6wsW5pUHRN
এখানে অবশ্য বেসিক টু প্রফেশনাল লেভেল পর্যন্ত দেখানো হয়েছে।
আর আমার ভিডিও যদি ন্যূনতম ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই সাবস্ক্রাই করবেন যাতে আমার পরবর্তী টিউটরিয়ালগুলো সহজেই পেতে পারেন। আপনার মত আরো অনেকে যাতে লেখাটা পড়তে পারে সেজন্য লেখাটা বেশি বেশি শেয়ার করুন।
ধন্যবাদ_
সাইফুল বিন. আ. কালাম।
Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s